শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

জমির দাবিতে বাবার জন্য খোঁড়া কবরে শুয়ে দাফনে বাধা

  • প্রকাশের সময় : ২৯/০৩/২০২৪ ১০:৪৫:৩৯
এই শীতে ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটছে তাদের
Share
30

নীলফামারীতে জমির দাবিতে মৃত বাবার জন্য খোঁড়া কবরে শুয়ে দাফনে বাধা সৃষ্টি করেছেন ছেলে নওশাদ আলী (২৮)। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পৃথক স্থানে তাঁর বাবার দাফন সম্পন্ন হয়। জেলা সদরের চাপড়া সরমজামি ইউনিয়নের যাদুরহাট বাটুলটারি গ্রামে শুক্রবার (২৯ মার্চ) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।


স্থানীয়দের থেকে জানা যায়, বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার ভোরে মারা যান ওই গ্রামের মজিবুর রহমান (৬২)।


তাঁর স্ত্রী দুজন। মৃত্যুর আগে দ্বিতীয় স্ত্রীকে দুই শতাংশ ও ছোট ছেলেকে পাঁচ শতাংশ জমি লিখে দিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে প্রথম স্ত্রীর তিন ছেলে—ওয়াজেদ, খয়রাত ও নওশাদ আলীকে মৌখিকভাবে তিন শতাংশ জমি দিয়েছেন। কিন্তু জমি রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার আগেই শুক্রবার ভোরে তাঁর মৃত্যু হয়।


জমি রেজিস্ট্রি করে না দেওয়ায় বাবার জন্য খোঁড়া কবরে শুয়ে পড়েন মেজো ছেলে নওশাদ। স্বজনরা অনেক চেষ্টা চালিয়ে তাঁকে আটকাতে না পেরে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশের হস্তক্ষেপে অন্যত্র কবর খুড়ে দাফন করা হয় মজিবর রহমানকে।


ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চাপড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মাহাবুল ইসলাম বলেন, ‘জমি লিখে না দেওয়ায় বাবাকে কবর দিতে বাধা প্রদানের ঘটনাটি আসলেই দুঃখজনক।


এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। পরে থানায় বিষয়টি জানালে পুলিশের হস্তক্ষেপে মৃত মজিবুরের দাফনকার্য সম্পন্ন হয়।’


নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তানভীরুল ইসলাম বলেন, ‘স্থানীয় গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কবরে শুয়ে থাকা নওশাদ আলী কবর থেকে উঠে পালিয়ে যান। পরে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় অন্যত্র কবর খুঁড়ে পুলিশের উপস্থিতিতে মজিবুর রহমানের দাফন সম্পন্ন করা হয়।


সিলেট প্রতিদিন / এসএএম


Local Ad Space
কমেন্ট বক্স
© All rights reserved © সিলেট প্রতিদিন ২৪
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি