রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

ওসমানীনগরে সড়কে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে গণডাকাতি!

  • প্রকাশের সময় : ১১/০২/২০২৪ ০৮:৩৭:৩২
এই শীতে ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটছে তাদের ছবি: সংগৃহীত
Share
54

সিলেটর ওসমানীনগরে সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় অস্ত্রধারী ডাকাতরা ২২জন পথচারীদের অস্ত্রেরমুখে জিম্মি করে মোবাইল ও টাকা চিনিয়ে নেয়। ডাকাতদের হামলায় গুরুতর আহত হন বালাগঞ্জ উপজেলার নাসিয়ারপুর গ্রামের পাবেল আহমদ (২০)।


শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ১টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত উপজেলার গোয়ালাবাজার-বালাগঞ্জ সড়কের কালাসারা হাওরের ব্রিজের উপর এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে।


তবে, পুলিশ বলছে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে বলে তথ্য পাইনি। মোটেরসাইকলে আরোহীর কাছ থেকে মোবাইল ছিনিয়ে গেছে বলে আমরা তথ্য পেয়েছি।


জানা যায়, শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে গোয়ালাবাজারের ব্যবসায়ী ও কিছু মানুষ ওয়াজ মাহফিল থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় ওসমানীনগর উপজেলার নতুন হাসপাতালের কাছে কালাসারা হাওর পাড়ে ব্রিজের কাছে কয়েকটি বাঁশ দিয়ে ডাকাত দল ব্যারিকেড সৃষ্টি করে। পথচারী ও অটোরিকশা আটক করে দাঁড়ালো অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে জিম্মি করে তাদেরকে কাছ থেকে মোবাইল ও টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় ডাকাতদের হামলায় আহত হন নসিয়ারপুর গ্রামের পাবেল আহমদ, ফয়জুল ইসলাম, হস্তিদুর গ্রামের দিলওয়ার হোসেনসহ অনন্ত ২২জন।


এসময় পাবেল আহমদ নামে একজন ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করেন এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বাড়িতে জানান। ডাকাতরা তাকে দাড়ালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করে। ডাকাত আতংকের খবর মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে হস্তিদুর ও নসিয়ারপুর গ্রামের লোকজন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে এসে আটককৃত পথচারীদের হাতের বাঁধ খুলেন এবং গুরুতর আহত পাবেল মিয়াকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। তার মাথায় মারাত্মক জখম রয়েছে। এসময় ডাকাতরা পালিয়ে যায়


খবর পেয়ে  রাত সাড়ে ৩টার দিকে ওসমানীনগর থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে।


পাবেল আহমদ, দিলওয়ার মিয়া ও আরামীন জানান, বাজার থেকে যাওয়ার পথে প্রায় ১০ জন ডাকাত আমাদেরকে অস্ত্রের মুখ জিম্মি করে সব কিছু নিয়ে যায়। পথচারী অনুমানিক ২২ জন লোককে আটক করে। এ সময় ডাকাতরা বলে নড়াচড়া করবে না। ২০ লাখ টাকা নিয়ে আসছে তাকে আমরা ধরবো। আমাদের সকলের টাকা মোবাইলসহ সব কিছু নিয়ে গেছে।


এব্যাপারে স্থানীয় নসিয়ারপুর গ্রামের আরাউদ্দিন রিপন ও হস্তিদুর গ্রামের আব্দুল হামিদ বলেন, আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে তাদেরকে উদ্ধার করি। ডাকাতরা পালিয়ে যায়। আমরা এই ডাকাতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।


এব্যাপারে ওসমনানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল হক বলেন, ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে বলে তথ্য পাইনি। স্থানীয় সাংবাদিক ও কিছু লোকের কাছ থেকে শুনেছি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। তবে কেউ একজন মোটরসাইকেল আরোহী কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায় এরকম তথ্য পেয়েছি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা কাজ করছি।


তিনি আরও বলেন, পাবেল নামে একজন লোক অসুস্থ আছে।তার বাড়ি বালাগঞ্জ। এখনো আমরা তার সাথে যোগাযোগ করতে পারিনি। ছিনতাই বা ডাকাতি হোক আমরা এটা নিয়ে কাজ করছি। আমাদের কর্মকর্তরা এই বিষয়টি নিয়ে কাজ শুরু করেছেন। আশা করছি খুব তাড়াতাড়ি অপরাধীদের বের করে ফেলতে পারবো।  



সিলেট প্রতিদিন / এমএ


Local Ad Space
কমেন্ট বক্স
© All rights reserved © সিলেট প্রতিদিন ২৪
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি