রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

সিলেট সদরে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবেন যুবসংগঠক আহাদ

  • প্রকাশের সময় : ০৫/০২/২০২৪ ০৮:১৪:০০
এই শীতে ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটছে তাদের
Share
138

সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে আগ্রহী যুবসংগঠক মো. আহাদ মিয়া। তিনি একজন অরাজনৈতিক ব্যক্তি হলেও রাজনীতি সচেতন ব্যক্তি। সমাজসেবক হিসাবে তিনি ইতিমধ্যে প্রচুর সুনাম অর্জন করেছেন। এ ব্যাপারে আরও বেশি কাজ করার আগ্রহ থেকেই তিনি জনপ্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতে চান। 


আহাদ সিলেট সদর উপজেলার ৩নং খাদিমনগর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ছালিয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী মো. আজির মিয়ার ছেলে। তিনি নিজেও একজন ব্যবসায়ী। লেখাপড়া করেছেন মদন মোহন কলেজে।


তিনি সেই ছাত্রজীবন থেকেই সমাজসেবার সাথে জড়িত। নানা সমস্যা সমাধানে এবং অসহায় দরিদ্র মানুষের কল্যাণে নিজের সাধ্যমতো নির্ভরতার প্রতিক হয়ে দাঁড়িয়েছেন তাদের পাশে।


তবে তার সবচেয়ে বড় অবদান যুব-সমাজের জন্য। নিজের জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ সময় ও কষ্ঠার্জিত অর্থ ব্যয় করে বেকার যুবসমাজকে সংগঠিত করেছেন। বিভিন্ন বিষয়ে তাদের সচেতন করে তোলার পাশাপাশি আত্মনির্ভর করে তোলার কাজে উজ্জীবিত করেছেন। এতে স্বচ্ছলতা এসেছে অনেকের জীবনে। আর এ কারণে সিলেট সদর  উপজেলার যুবসমাজের মধ্যে তার আলাদা একটা জনপ্রিয়তা ও গ্রহনযোগ্যতা রয়েছে। বিষয়টি এলাকার সচেতন প্রায় সবমহলই অবগত। মূলতঃ যুবসমাজ ও সচেতন মহলের নিরন্তর অনুপ্রেরণা তাকে নির্বাচনে উদ্বুদ্ধ করেছে বলে একান্ত আলাপচারিতায় নিশ্চিত করেছেন।


আব্দুল আহাদ দারুন একটা শ্লোগান নিয়ে জনসেবামূলক কাজ করছেন। তার শ্লোগান হচ্ছে, ‘তারুণ্যের গর্জন তারুণ্যের  উচ্ছ্বাস, বদলে দিবে আমাদের সমাজ’। শ্লোগানটি তরুণ ও যুবসমাজের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তার ব্যক্তিগত বিশ্বাস, তারুণ্যের শক্তি দেশ ও জাতির ভাগ্য পাল্টে দিতে সক্ষম। আর তাই সিলেট সদর উপজেলার সার্বিক সমস্যা চিহ্নিত ও তা সমাধানের উপায় খুঁজতে গিয়ে তেমন পরিকল্পনা নিয়েই এগুচ্ছেন।


নিজে তরুণ হলেও সমাজে প্রবীনদের অবদানের ব্যাপারেও সচেতন আহাদ। তাই তাদের বিশেষ সম্মানের আসন দেয়ার বিষয়টিও তার উন্নয়ন পরিকল্পনায় আছে। তিনি গোটা উপজেলার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনগুলোকে সংগঠিত করে সম্মিলতভাবে উন্নয়ন প্রচেষ্টা বাস্তবায়নে বিশ্বাসী। এছাড়া ইমাম মুয়াজ্জিন, মন্দিরের পুরোহিত ও গির্জার ফাদাররাও আছেন তার উন্নয়ন পরিকল্পনায়। তাদের আর্থিক সমস্যা সমাধানের বিষয়টি নিয়েও তিনি কাজ করতে আগ্রহী। 


ন্যায়ভিত্তিক সালিশ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সাধারণ ফৌজদারি সমস্যার সমাধানের মাধ্যমে মানুষের মামলা মোকদ্দমার ব্যয় হ্রাস, মান-সম্মত শিক্ষা নিশ্চিতে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান, খেলাধুলার উন্নয়নের মাধ্যমে মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, মান-সম্মত স্বাস্থ্যসেবা, প্রতিবন্ধী, ভিক্ষুক ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের পূণর্বাসন, কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষি সম্প্রসারণও আছে তার উন্নয়ন পরিকল্পনায়। 


সিলেট সদরের বিশাল তারুণ্যকে বিভিন্ন ধরনের সরকারি বেসরকারি উদ্যোগে প্রশিক্ষিত জনশক্তিতে রূপান্তর করে উদ্যোক্তা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ ও বাস্তবায়নের মাধ্যমে তিনি স্বাবলম্বী করতে আগ্রহী। এক্ষেত্রে আইটি খাতকেই তিনি সর্বাত্মক গুরুত্ব দিবেন। এ খাতের মাধ্যমে কোটি কোটি ডলার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন খুবই সম্ভব।


মো. আহাদ মিয়া সিলেট সদর উপজেলাবাসীর ভাই-বন্ধু বা সন্তান হিসাবে সবার দোয়া ও সার্বিক সহযোগিতার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।


সিলেট প্রতিদিন / ইকে


Local Ad Space
কমেন্ট বক্স
© All rights reserved © সিলেট প্রতিদিন ২৪
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরি