দোয়ারাবাজারে আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় স্বামী-শাশুড়ি কারাগারে
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৮ অপরাহ্ন

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশ ২০২১-০৯-০৪ ১১:০৬:৪৬
দোয়ারাবাজারে আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় স্বামী-শাশুড়ি কারাগারে

দোয়ারাবাজারে এক গৃহবধূর আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।গ্রেফতারকৃতরা হলো গৃহবধূর স্বামী আল আমিন(২৫) ও তার মা নুর জাহান বেগম (৪৫)।

মামলা সুত্রে জানা যায়, উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের পুত্র আল আমিনের সাথে দুই বছর পুর্বে বিয়ে হয় একই ইউনিয়নের টেংরাটিলা গ্রামের জামাল উদ্দিনের মেয়ে বৃষ্টি আক্তারের। তাদের সাংসারিক জীবনের শুরু থেকেই নানা কারণে গৃহবধূ বৃষ্টি আক্তারের উপর চালানো হয় শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন। স্বামী ও শশুর বাড়ীর লোকজনের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে অতি সম্প্রতি বৃষ্টি আক্তার তার বাবাকে জানালে পিতা জামাল উদ্দিন মেয়েকে দেখার জন্যে তার স্বামীর বাড়ীতে যান সেখানে জামাল উদ্দিনকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন।

গত ৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে স্বামী আল আমিনসহ তার পরিবারের লোকজন গৃহবধূ বৃষ্টি আক্তারকে মানুষিক অশান্তিমুলক কুটুক্তি ও গালিগালাজ করে।

ঐদিন স্বামী ও শশুর বাড়ীর লোকজনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে বিষপান করলে তাকে চিকিৎসার জন্যে দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়। সেখানে  প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে  সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হলে সেখানেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে গৃহবধূ বৃষ্টি আক্তার।

এ ঘটনায় ঐদিন রাতে গৃহবধূ বৃষ্টি আক্তারের চাচী রেহেনা বেগম বাদী হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনায় স্বামী আল আমিনসহ দুইজনকে আসামি করে দোয়ারাবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ০৬ তারিখ ৩/৯/২১।

জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান খান বলেন, আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় গৃহবধূর স্বামী ও শাশুড়িকে গ্রেফতার করে শনিবার জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।মামলার তদন্ত চলছে।

সিলেট প্রতিদিন/এমএনআই

ফেসবুক পেইজ