মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
Sylhet Protidin 24


তিন দশকেও সংস্কার হয়নি পেঁচাছড়া সেতুর

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ ২০২২-০৮-০৮ ১১:২৯:২৬

তিন দশকেও সংস্কার করা হয়নি সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার উত্তর রনিখাই ইউনিয়নের লামাগ্রামের পেঁচাছড়া খালের ওপর নির্মিত সেতুটির। সেতুটির দুই পাশে নেই কোনো রেলিং। পিলারগুলো নড়বড়ে। একপাশে ভেঙে যাওয়া অংশে যুক্ত হয়েছে বাঁশের সাঁকো। এপ্রোচ সড়কের মাটিও সরে গেছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন পাঁচ গ্রামের মানুষ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ভারতের মেঘালয় রাজ্যের উঁচু পাহাড় থেকে প্রবাহিত পেঁচাছড়া খালটি লামাগ্রামকে পূর্ব ও পশ্চিম পাড়ে ভাগ করেছে। ১৯৯১ সালে অবিভক্ত রনিখাই ইউনিয়ন পরিষদের তৎকালীন চেয়ারম্যান মরহুম এম. তৈয়বুর রহমান সেতুটি নির্মাণ করেন। নির্মিত সেতুটি গ্রামের দুই পাড়ের মানুষের মেলবন্ধন ঘটায়। 

লামাগ্রাম ছাড়াও তুরং, দমদমা, কামালবস্তি ও খাসেরবস্তি গ্রামগুলো সরাসরি যোগাযোগের আওতায় আসে এই সেতুর মাধ্যমে। কিন্তু নির্মাণের কয়েক বছর পর পাহাড়ি ঢলে সেতুটি ভেঙে যায়। এলাকাবাসী সেতুর সঙ্গে বাঁশের সাঁকো জোড়াতালি দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন। দুর্ভোগের অবসান ঘটাতে অনেকবার সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন জানিয়েও কোনো ফল পাননি এলাকাবাসী।

লামাগ্রামের বাসিন্দা মাওলানা আশরাফুল হাসান জানান, দীর্ঘদিনেও সেতুটি সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। নিরুপায় হয়ে এলাকাবাসী সেতুর সঙ্গে বাঁশের সাঁকোর সংযোগ ঘটিয়ে চলাচলের উপযোগী করেন। বিশেষ করে এলাকার শিক্ষার্থীরা এই ভাঙা সেতু পার হয়েই স্কুলে যায়। শুষ্ক মৌসুমে সেতুর নিচ দিয়ে যাওয়া গেলেও বর্ষায় ঝুঁকি নিয়েই পার হতে হয় সেতুটি।

উত্তর রনিখাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার ফয়জুর রহমান বলেন, ‘জনস্বার্থে জরাজীর্ণ এই সেতুটি পুনরায় নির্মাণ করা প্রয়োজন। বিষয়টি উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভায় উপস্থাপন করা হবে।’

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী শাহ আলম বলেন, ‘আপতত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পাকা রাস্তাগুলোর কাজ শুরু হচ্ছে। ওই সেতুটি যেহেতু কাঁচা রাস্তায় পড়েছে। এটি আমাদের কার্যক্রমের আওতায় নেই। পরবর্তীতে কোনো প্রকল্পের মাধ্যমে সেতুর কাজ করা যেতে পারে।’

সিলেট প্রতিদিন/ এম আর এম

Local Ad Space

বিজ্ঞাপন স্থান


পুরাতন সংবাদ খুঁজেন

ফেসবুক পেইজ

জৈন্তাপুরবাসীর কল্যাণে কাজ করছে প্রবাসী গ্রুপ

ছাত্রলীগ সিলেট ল কলেজ শাখার আংশিক কমিটি অনুমোদন

সিকৃবি অফিসার পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী...

‘জকিগঞ্জে বাড়ির জায়গা দখল করতে ভাঙচুর-লুটপাট’

গোলাপগঞ্জে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন উপলক্ষে...

‘নদী ভাঙ্গনের কবলে থেকে পীরপুর গ্রাম রক্ষা...

জেলা পরিষদ নির্বাচন: গোয়াইনঘাটের কে কোন প্রতিক...

সিলেটে নারীবেশী যুবক খুন, গ্রেফতার ৬ হিজড়া

সিলেটে বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির...

কমলগঞ্জে শিক্ষা উপকরণ পেয়ে আনন্দিত...

সিলেটে যৌতুক দিতে অস্বীকার করায় গৃহবধুকে...

দুবাইয়ে জৈন্তাপুর প্রবাসী গ্রুপের অভিষেক

লাখাইয়ে সাবেক মুক্তিযোদ্ধা তাজুল ইসলামের...

ওয়ার্ল্ড ভিশনের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন...

সিলেটে পাসপোর্টে জটিলতা ও হয়রানি লাঘবে...

বালাগঞ্জে শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষে...

সিকৃবিতে ল্যাপস’র বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

১ ঘণ্টায় স্থানীয়দের চেষ্টায় টুকেরবাজারের আগুন...

সিকৃবিতে ল্যাপস’র বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

ইডেনে ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত,...

মাহিরের চিকিৎসার্থে এলইউ সোশ্যাল সার্ভিসেস...

সুনামগঞ্জে মুকুটকে আ’লীগ থেকে অব্যাহতি

টুকেরবাজারে টিনশেড বাসায় ভয়াবহ আগুন

শান্তিগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অর্থ...

জেলা পরিষদ নির্বাচন: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়...

যুক্তরাষ্ট্রে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে...

সিলেটে বন্যা: সড়ক সংস্কারে মিলেছে...

ব্যাংকক যাচ্ছেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক

করতোয়ায় নৌকাডুবি: নিহত বেড়ে ৩৪

এবার নারী বিশ্বকাপ বাছাইয়ে চ্যাম্পিয়ন...

রাখাইন গ্রাম পুড়িয়ে দিল মিয়ানমার সেনাবাহিনী

ছাতক-সিলেট রেলপথে সংস্কার কাজ শুরু

জেলা পরিষদ নির্বাচন: সিলেটসহ সারাদেশে বিনা...

সরকার যুবদলের আন্দোলন বন্ধ করতে পারবেনা:...

নদী হচ্ছে দেশের শিরা-উপশিরা : জেলা প্রশাসক

বিজ্ঞাপন স্থান