সিলেটে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ধর্মীয় নেতাদের ভূমিকা শীর্ষক সভা
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১২:১৫ অপরাহ্ন



প্রতিদিন ডেস্ক

প্রকাশ ২০২২-০১-১৪ ০৫:২১:১০
সিলেটে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ধর্মীয় নেতাদের ভূমিকা শীর্ষক সভা

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয় নিয়ে সিলেটে 'সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ধর্মীয় নেতাদের ভূমিকা' শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকালে সিলেট নগরীর রিকাবী বাজারস্থ কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টি এ সভা আয়োজন করে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা ইসমাইল হোডেন বলেছেন,১৯৭১ সালে একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধারন করে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যুদ্ধে অংশগ্রহন করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছে। বর্তমানে একটি উগ্রবাদী গোষ্ঠী দেশে সাম্প্রদায়িকতার বিষপাপ ছড়িয়ে ধর্মীয় সেন্টিমেন্ট ব্যাবহার করে দেশের শান্তি বিনষ্ট করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছ। কিছুদিন আগে কুমিল্লায় ঘটেছিল বলে উল্লেখ করে তারা এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও সময়োপযোগী সঠিক সিদ্ধান্তের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

তিনি দেশ ও ধর্ম বিরোধী সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ধর্মীয় নেতাদের সজাগ ও সতর্ক আহবান জানিয়ে বলেন, ক্ষমতার লোভে কেহ যদি পবিত্র কোরআনকে ব্যাবহার করে ক্ষমতায় যেতে চায় সেটা কোনদিন সেটা সফল হবেনা। আলোচনায় ধর্মীয় নেতারা পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআনকে বিএনপি জামাতের প্ররোচনায় কুমিল্লার পুজা মন্ডপে রাখা হয়েছিল বলে উল্লেখ করে বলেন, দেশকে যারা অস্তিতশীল করার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত ছিল তাদের দৃষ্টান্তমুলক বিচারও দাবী করেন।

সভায় তারা বর্তমান সরকারের টানা ১৩ বছরে সর্বক্ষেত্রে দেশের উন্নয় সমৃদ্ধির কথা উল্লেখ করে বলেন,বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে আত্মমর্যাদাশীল প্রতিষ্ঠা পেয়েছে,যাহা আমাদের সকলের গর্বের বিষয়। ২০২১ সাল ছিল বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিযাত্রার অভূতপূর্ব স্বীকৃতির বছর। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে জন্মশতবার্ষিকী 'মুজিববর্ষে' এই অর্জন বাঙ্গালী জাতির জন্য অত্যন্ত আনন্দের এবং গর্বের। তারা দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার গর্বিত এধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ থাকারও আহবান জানান।

তারা বৃিটিশ শাসনামল থেকে এপর্যন্ত দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব উন্নয়ন গণতন্ত্র ও অগ্রযাত্রায় আলেম সমাজ সহ যারা অবদান রেখেছেন,রাষ্ট্রীয় স্বার্থে ও প্রগতিশীল ভবিষ্যৎ গড়তে তাদের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়।

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক (সিলেট বিভাগ) আলহাজ্ব মাওলানা মঈনুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন মাওলানা মইনুল হক চৌধুরী,মাওলানা সুফিয়ান বিন এনাম,মাওলনা হারুন অর রশীদ মিরন,কবি মিম সুফিয়ান,মাওলানা বদরুজ্জামান, মাওলানা সাইফুল্লাহ সাদি,সিলেট বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুস্তাক আহমেদ, প্রিন্সিপাল মাওলানা মখলিসুর রহমান রাজাগঞ্জী,প্রিন্সিপাল মাওলানা আহমেদ কবির,মাওলানা মো.নাসির উদ্দিন মাহমুদ, আন্তর্জাতিক হাফিজ ক্বারী মাওলানা আব্দুল মান্নান,মাওলানা মোঃ তোজাম্মেল হোসেন,মাওলানা মো.জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

সভায় সিলেট বিভাগের চার জেলা ও বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কয়েকশতাধিক আলেম-উলামা,বিভিন্ন মদ্রাসাহ প্রধান, বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও খতিবগন এসভায় উপস্হিত ছিলেন। আলোচনা শেষে সেখানে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

সিলেট প্রতিদিন/এমএ

বিজ্ঞাপন স্থান


পুরাতন সংবাদ খুঁজেন

ফেসবুক পেইজ