নবীগঞ্জে নৌকার প্রার্থী ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলার প্রধান আসামী হাবিব
রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৫৫ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ ২০২১-১১-২৩ ০৬:০৩:০৮
নবীগঞ্জে নৌকার প্রার্থী ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলার প্রধান আসামী হাবিব

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ায়ম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করছেন আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা হেভেন হত্যা মামলার প্রধান আসামী হাবিবুর রহমান হাবিব। 

এছাড়া একটি জালিয়াতি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। এখানেই শেষ নয়, ইউএনওকে লাঞ্চিতসহ একাধিক মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে বর্তমানে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জাবেদুল আলম সাজু। গত নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে বিজয়ী হয়েছিলেন। তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে তাকে বাদ দিয়ে বিতর্কিত হাবিবুর রহমান হাবিবকে মনোনয়ন দেয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে স্থানীয় ভোটার ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে। সেই সাথে নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৩ মার্চ নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা হেভেন চৌধুরীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামী হাবিবুর রহমান হাবিব। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন। 

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামের কাছ থেকে ব্যবসার কথা বলে ২০ লাখ টাকা এনে আত্মসাৎ করেন। এ ঘটনায় সাইফুল ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আদালত তার বিরুদ্ধে (সিআর ৬৩/২১) গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে। কিন্তু তবু তাকে গ্রেপ্তার করছে না পুলিশ।

২০১০ সালের ৭ মার্চ জলমহাল ইজারা নিয়ে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (বর্তমানে সড়ক ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব) সুলতানা ইয়াসমীনকে লাঞ্চিত করেন হাবিব। এ ঘটনায় ইউএনও বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা  দায়ের করেন।

এ বিষয়ে জানতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গভীর ‘ষড়যন্ত্র করে আমার প্রতিপক্ষের লোকজন আমাকে হেভেন হত্যা মামলার প্রধান আসামী করেছে। এছাড়া আমার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট আছে বলে জানা নেই। যদি সম্প্রতি কোন ওয়ারেন্ট থাকে, তবে তাও ষড়যন্ত্র।’

সিলেট প্রতিদিন/ইকে

ফেসবুক পেইজ