মিশিগানে বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির নির্বাচন
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন

আশিক রহমান, মিশিগান (যুক্তরাষ্ট্র)

প্রকাশ ২০২১-১০-১২ ১২:০৬:৫৩
মিশিগানে বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির নির্বাচন

বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে গতকাল রবিবার সকাল ৯ টা থেকে রাত ৮ ঘটিকা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহনের মধ্যদিয়ে মিশিগানে অবস্থারত বাংলাদেশীদের জেলাভিত্তিক আঞ্চলিক সংগঠন বিয়ানিবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইনক মিশিগান এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্টিত হয়।

দুটি প্যানেলভুক্ত প্রার্থীদের মধ্যে এই নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়।যদিও দিনের শুরতে আবহাওয়া অনুকুলে ছিলনা বেলা বাড়ার সাথে সাথে আবহাওয়া পরিস্থিতি ভাল হয়ে যাওয়ায় সকাল থেকে ভোটাররা নিরবিচ্চিন্নভাবে এবং স্বতস্ফুর্তভাবে ভোটগ্রহনে অংশগ্রহন করে প্রবাসে ভোটাধিকার প্রয়োগে অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই।হ্যামট্রামেক সিটির গেইটস অব কলম্বাস এর হলরুমে নির্বাচন কার্যক্রম পরিচালনা করার ব্যবস্থা করা হয়। সকাল ১১.৩০ ঘটিকার সময় নির্বাচন পরিচালনার স্থানে গিয়ে দেখা যায় ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষনিক পুলিশ নিয়োজিত। হলরুমের ভেতরে প্রবেশ করলে দেখা যায় ভোটাদের ভোট প্রদানের জন্য সাজানো গোছানো আছে ১৭টি বুথ।পোলিং এজেন্টরা ভোটারদের পরিচয় জেনে তাদেরকে ব্যালট পেপার প্রদান করছেন।

যার মধ্যে মহিলাদের জন্য ৬টি এবং পুরুষ ভোটারের জন্য বাকী ১১টি বুথ। ব্যালট পেপারে প্রার্থীদের নামগুলো বাংলা ও ইংরেজী নামানুসারে লিখা হয়েছে এবং নির্বাচনে স্বচ্ছতা ও নিরেপ্রেক্ষতার জন্য ব্যালট পেপারে অত্যাধনিক বার কোড পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে। সেখানে যে কেউ চাইলেই জাল ভোট দিতে পারবেন না। নির্বাচন পরিচালনা সুত্রে জানা যায়, ঐক্য,সেবা,শিক্ষা এবং সংস্কৃতির ব্রত নিয়ে ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্টিত হয় এই সংগঠন। এবারের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ১৭ টি পদের জন্য প্রার্থীরা নির্বাচন করছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ২৪৩৭ টি। এরমধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ১৫৪৬ জন। ১৭ টি পদের বিপরীতে দীর্ঘ ভোট গননা শেষ করতে প্রায় ভোর রাতে নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ্যাডভোকেট মহব্বত খান ও কমিশনের সদস্য সচিব মোঃ নুরুল ইসলাম এবং অন্য কমিশনার মোঃ মোস্তাক আহমেদ সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনা করেন।

প্রথমে সাধারন সদস্যের ফলাফল ঘোষনা করেন পরবর্তীতে সভাপতিসহ অন্যান্য পদের ফলাফল ঘোষনা দেন। সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ আজমল হোসেন আজমল যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৭৯৮ এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন একই পরিষদের বাছির আহমেদ বাবুল যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৭৮৬। তবে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদের প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীরা দুজনই সমান ভোট অর্থাৎ প্রত্যেকেই ৮৮ টি ভোট কম পেয়ে হেরে যান।সাংগঠিক সম্পাদক পদে মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম ৭৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। সবচেয়ে প্রতিদ্বন্ধিতাপুর্ণ নির্বাচন হয়েছে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে। মাত্র ৩ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়ে মোঃ আব্দুল আজিজ নির্বাচিত হয়েছেন।

যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৭২৭ এবং প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী পেয়েছেন ৭২৪ ভোট।কমিটির অন্যান্য নির্বাচিত সদস্যরা হলেন সহ সভাপতি রুহুল আমিন,সহ সাধারণ সম্পাদক এহিয়া হক,কোষাধক্ষ্য জাকারিয়া জামান,দপ্তর সম্পাদক,রাসেল হোসেন,প্রচার সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিয়া,ক্রীড়া সম্পাদক এম রুবেল আহমেদ,ধর্ম ও আইন বিষয়ক সম্পাদক হুসাইন আহমেদ তারেক,কার্যকরী সদস্য আব্বাছ উদ্দিন মিয়,কবির আহমেদ,কবির আহমেদ লিলু,মহিউল ইসলাম,ছাব্বির আহমেদ,শহিদুজ জামান হুসেইন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ মজির উদ্দিন চৌধুরী বকুল।

সিলেট প্রতিদিন/এসএ

ফেসবুক পেইজ