সোমবার, ২৪ Jun ২০১৯, ০৬:১৬ অপরাহ্ন

নগরীতে গনপিটুনিতে যুবক নিহত : ‘দা’ নিয়ে রহস্য

নগরীতে গনপিটুনিতে যুবক নিহত : ‘দা’ নিয়ে রহস্য

প্রতিদিন প্রতিবেদক : সিলেট নগরীর বনকলাপাড়ায় জনতার গণপিটুনিকে খুন হওয়া দুদু মিয়ার (৩৮) মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জনমনে রহস্য সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কেউ কেউ বলছেন বিষয়টি খুবই রহস্যের। তাদের মতে,দুদু মিয়াকে প্রতিরোধ করতে আসা লোকজন মারধোরের পর টেনে হিচরে প্রায় হাফ কিলোমিটার নিয়ে গেলেও মৃতের হাতে ‘দা’ থাকে কিভাবে।

বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বেশ তোলপাড় চলছে। স্থানীয় এক প্রবীণ মুরুব্বী নাম না প্রকাশের শর্তে বলেন- ‘সবাই মিলে একসাথে দুদুকে মারতে দেখেছি, কিন্তুও এতো লোকের হাতে মার খেয়ে মৃত্যুর খবর শোনে কাছে যাই। কাছে গিয়ে দেখি দুদুর হাতে একটি দা দেখা যাচ্ছে’।

স্থানীয় এক ব্যবসায়ী বলেন, দুদু খারাপ লোক ছিলো বলে শুনেছি। বুধবার রাতেও সে নাকি সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে এসেছিল। খবর পেয়ে এলাকার মানুষ মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুদুকে মারধোর করতে থাকে। কিন্তু এতো লোকের ভিড়েও তার হাতে দা থাকা নিয়ে এলাকার লোকজন অন্যরকম ভাবতে শুরু করেছে।

বুধবার রাত সাড়ে ১১ টায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড- করতে গেলে জনতার গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় দুদু।

জানা গেছে, খুন হওয়া দুদু ধর্ষণ মামলার আসামী ছিল। এছাড়া সে বনকলাপাড়া পাড়া এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। সম্প্রতী সে ছাড়া পেয়ে আবারো এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড শুরু করে। গত কয়েকদিন আগে সে স্থানীয় মসজিদের মুয়াজ্জিনকেও মারতে উদ্যত হয় বলে জানান এলাকাবাসী।

এদিকে, গণপিটুনিতে হত্যার খবর পেয়ে এয়ারপোর্ট থানার ওসি শাহদাত হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছোয়। ওসি জানান- লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলের পাশ থেকে তার ব্যবহৃত একটি মোটর সাইকেল জব্দ করা হয়েছে।

এসময় তার সাথে থাকা কয়েকজন পালিয়ে যায়। নিহত দুদু মিয়ার হাতে দেশীয় একটি দা পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।

সিলেট প্রতিদিন / এসএল

নিউজটি শেয়ার করুন







© All rights reserved © 2019 sylhetprotidin24