বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ০৭:২০ অপরাহ্ন

অসহায় স্কুলছাত্রীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন ওসি মাইনুল জাকির

অসহায় স্কুলছাত্রীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন ওসি মাইনুল জাকির

সিলেট প্রতিদিন :: জৈন্তাপুর উপজেলার চিকনাগুল ইউনিয়নের বাসিন্দা অসহায় এক স্কুলছাত্রীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন জৈন্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান মোঃ মঈনুল জাকির। তিনি গতকাল মঙ্গলবার (১৪মে) স্কুলছাত্রীর দায়িত্ব নিয়ে লেখাপড়ায় উৎসাহ প্রদান করেন। ওই স্কুলছাত্রী এসএসসি পরীক্ষায় ভাল রেজাল্ট করে উত্তীর্ন হয়েছে কিন্তু তার একাদশ শ্রেনিতে ভর্তিসহ পরবর্তীতে লেখাপড়ার যাবতীয় খরচ চালাতে পারছে তার অসহায় পিতা। যার ফলে তার কলেজে ভর্তি হওয়াটা অনিশ্চিত ছিল।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে স্কুল ছাত্রীর মা বলেন, মেয়ের লেখাপড়ার খরচ চালাতে না পেরে ভাবছিলাম তার লেখাপড়া বন্ধ দিব। সারাদিন মানুষের বাসায় কাজ করে যা আয় করি তা দিয়ে সংসারই চলে না। মেয়ের জীবনে কান্না ছাড়া আর কিছু নেই। এভাবেই খেয়ে না খেয়ে চলছে এসএসসি পর্যন্ত তার লেখাপড়া। এই অবস্থায় আল্লাহর তরফ থেকে ফেরেশতা হিসেবে আমার মেয়ের সকল দায়িত্ব নেন ওসি। এ সহযোগীতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে স্কুল ছাত্রীর পরিবার।

ওসি খান মোঃ মঈনুল জাকির বলেন, সামর্থানুযায়ী আমরা প্রত্যেকেই একজন করে অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়াই। একজন অসহায় দরিদ্র মেয়ে যার পাশে না দাঁড়ালে আজ হয়তো তাঁর জীবনের উপর চরম ঘৃণা চলে আসত। সে এবার এসএসসি পরীক্ষায় ভাল রেজাল্ট করে উত্তীর্ন হয়েছে।

বিদায় আমি এমন খবর শুনে আমার অফিসে ডেকে এনে অত্র উপজেলার চারিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আলম চৌধুরী তোফায়েল এর উপস্থিতিতে তার একাদশ শ্রেনিতে ভর্তিসহ পরবর্তীতে পড়াশুনার যাবতীয় খরচ বহনের দায়িত্ব নিয়েছি। নতুন জীবনের পথ দেখিয়ে লেখাপড়ার জন্য টাকা তুলে দিলাম ওই স্কুল ছাত্রীর হাতে। সাবই ছাত্রীর জন্য দোয়া করবেন। সে যাতে আগামীতে আর ভালো রেজাল্ট করে অসহায় মা-বাবার মুখে হাঁিস ফোটাতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন






© All rights reserved © 2019 sylhetprotidin24